ঢাকা | বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ |
২০ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে ‘কুমন কানেক্ট’

শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে ‘কুমন কানেক্ট’
শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে ‘কুমন কানেক্ট’

দেশব্যাপী শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব (এসআরডিএল)-এ ‘কুমন কানেক্ট’ - কুমনের ডিজিটাল লার্নিং প্লাটফর্ম বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ (ডিওআইসিটি) গত ২৩শে জানুয়ারি ঢাকায় ব্র্যাক কুমন লিমিটেড (বিকেএল) -এর সাথে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে।

স্বাক্ষরকারীরা ছিলেন ডিওআইসিটি -এর মহাপরিচালক জনাব মো: মোস্তফা কামাল এবং ব্র্যাক কুমন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক লেডি সৈয়দা সারওয়াত আবেদ। এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক, এমপি, সিনিয়র সচিব জনাব এনএম জিয়াউল আলম পিএএ, জেট্রো ঢাকা অফিসের বাংলাদেশ প্রতিনিধি জনাব ইউজি আন্দো এবং জাইকা বাংলাদেশ অফিসের প্রোগ্রাম উপদেষ্টা জনাব তানেমুরা হিডেকাজু।

২০২২ এর অক্টোবরে, অ্যাডভান্সড স্টুডেন্ট অনার রোল অনুষ্ঠানটি সফলভাবে আয়োজন করার পর, বিকেএল -কে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব (এসআরডিএল) প্রকল্পে কুমন কানেক্ট শুরু করার প্রস্তাবনা দেয় ডিওআইসিটি। বাংলাদেশ সরকারের স্মার্ট বাংলাদেশ ভিশন ২০৪১ পূরণের জন্য, এসআরডিএল প্রকল্পের উদ্দেশ্যগুলির মধ্যে রয়েছে ডিজিটাল ও প্রযুক্তিগতভাবে সুসজ্জিত বাংলাদেশ গড়ে তোলা, মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করা, কর্মসংস্থানের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং শিক্ষার্থীদের ভাষা দক্ষতার বিকাশসহ অন্যান্য।

এসআরডিএল-এ কুমন কানেক্ট বাস্তবায়নের মাধ্যমে ডিওআইসিটি এবং বিকেএল আশা করছে যে কুমনের সুবিধা সারাদেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে আরো স্মার্ট ব্যাক্তি তৈরি করা সম্ভব। যাতে করে বাংলাদেশ সরকারের স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরির উদ্যোগ আরো ফলপ্রসূ হয়। ডিওআইসিটির কর্মকর্তাদের তথ্যানুযায়ী, কুমন কানেক্ট দেশব্যাপী সম্প্রসারণের আগে প্রাথমিকভাবে ৬টি অঞ্চল জুড়ে চালু করা হবে; যার মধ্যে অন্যতম হল সিংড়া, বেলকুচি, গোপালগঞ্জ, এবং টুঙ্গিপাড়া।

অনুষ্ঠানে মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক এমপি বলেন, “Smart Bangladesh গড়ার জন্য প্রয়োজন Smart Citizen আর Smart Citizen গড়ে তোলার জন্য প্রয়োজন Smart Future Generation. আর এই কারনেই আমরা BRAC Kumon এর উপর জোর দিচ্ছি। নতুন এই Learning Mechanism বা Ecosystem Develop করার প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে আমাদের শেখ রাসেল Sheikh Russel Digital Lab (SRDL) এ BRAC Kumon After School Learning Program নিয়ে আসা। ২০২৫ সালের মধ্যে ১৩০০০ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে ৩৫০০০ SRDL-এ কুমন করতে পারবে আমাদের শিশুরা।”

ব্র্যাক কুমন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক লেডি সৈয়দা সারওয়াত আবেদ, বলেন, “আমরা কুমন মেথডকে বাংলাদেশে এনেছি এই চিন্তা করে যে বাংলাদেশের বাচ্চাদের আর মুখস্ত বিদ্যার মাধ্যমে পড়াশোনা করতে হবে না, ওরা নিজে নিজে সব শিখতে পারবে। আজকে এখানে আসার পর মনে হচ্ছে যে আবেদ সাহেবের স্বপ্ন সত্যিই পূরণ হয়েছে, এই প্রকল্পের মাধ্যমে State Ministry - এর মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশে কুমন মেথড ছড়িয়ে দিতে পারব”

এছাড়াও জেট্রো ঢাকা অফিসের বাংলাদেশ প্রতিনিধি ইউজি আন্দো-র মতে, “আমরা অত্যন্ত আনন্দিত যে বাংলাদেশ সরকারের আই. সি. টি. বিভাগ ও ব্র্যাক কুমনের মাধ্যমে বাং;লাদেশের আরো বেশি শিশু কুমন করার সুযোগ পাবে। এই বিষয়ে আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা আমরা কর ”

১৯৫৮ সালে জাপানে প্রতিষ্ঠিত, কুমন হল বিশ্বের বৃহত্তম স্কুল-পরবর্তী শিক্ষা কার্যক্রম যা শিক্ষার্থীদের স্ব-শিক্ষার মাধ্যমে স্বাধীনভাবে বিকাশ করতে সক্ষম করে তোলে। এখন পর্যন্ত ৬২টি দেশে লক্ষাধিক শিশু কুমন করেছে। শীর্ষস্থানীয় জাপানী বিশ্ববিদ্যালয়গুলি তাদের একাডেমিক গবেষণার মাধ্যমে দেখিয়েছে যে, ৯৫% এরও বেশি শিক্ষার্থী যারা কুমন করেছে, তাদের মধ্যে সমস্যা সমাধানের মনোভাব, কারিগরি দক্ষতা, ভুল সংশোধনের দক্ষতা এবং চিন্তা করার দক্ষতার মত গুরুত্বপূর্ণ জীবন দক্ষতাগুলো বিকশিত হয়েছে। ডিওআইসিটি এবং বিকেএল কর্মকর্তারা বিশ্বাস করেন যে, এসআরডিএল-এ কুমনের বিস্তারের মাধ্যমে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে একই ধরনের উন্নতি দেখা যাবে।

সর্বপ্রথম নাটোরের সিংড়া দমদমা পাইলট স্কুল অ্যান্ড কলেজে উদ্ভোদনের মাধ্যমে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে যাত্রা শুরু হবে ‘কুমন কানেক্ট’ - এর।

শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব,কুমন কানেক্ট
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়