ঢাকা | বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ |
২৮ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

শাওমির সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করল ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট

শাওমির সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করল ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট
শাওমির সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করল ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট

বিদেশি মুদ্রা বিনিময় আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে শাওমির ইন্ডিয়ার ৫৫৫১.২৭ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট । গতকাল, শুক্রবার শাওমি গ্লোবালের ভাইস প্রেসিডেন্টকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন তদন্তকারীরা। চিনা সংস্থা শাওমির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণাধীন শাওমি ইন্ডিয়া।

ইডি সূত্রের খবর, সংস্থার ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্টে থাকা সমস্ত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে সংস্থার বিরুদ্ধে বেআইনিভাবে বিদেশি বিনিময় মুদ্রা বিনিময় লেনদেনের অভিযোগ ওঠে। ওই মামলাতেই পদক্ষেপ করল কেন্দ্রীয় সংস্থা। চলতি মাসে শাওমি গ্লোবালের ভাইস প্রেসিডেন্ট মনুকুমার জৈনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল।

২০১৪ সালে ভারতে ব্যবসা শুরু করে সংস্থা। ২০১৫ সাল থেকে বিদেশি মুদ্রার লেনদনে করছে। ভারতীয় মুদ্রায় ৫৫৫১.২১ কোটি টাকার সমান বিদেশি মুদ্রা স্বত্ত্বের নামে তিনটি সংস্থা মাধ্যমে বেআইনিভাবে লেনদেন করা হয়েছে। চিনা সংস্থার নির্দেশেই বিশাল পরিমাণ অর্থকে স্বত্ত্ব হিসেবে দেখানো হয়েছিল। এর মধ্যে রয়েছে শাওমি গোষ্ঠীর একটি সংস্থাও। আর বাকি দুটি মার্কিন কোম্পানি। এভাবে আখেরে লাভবান হয়েছে শাওমি। ইডি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে,ভারতে শাওমি ইন্ডিয়া নামে ফোন বণ্টন ও বিক্রি করে এমআই।

ইডি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, মোবাইল ফোন এবং অন্যান্য তৈরি ও বিক্রি করে শাওমি ইন্ডিয়া। বিদেশি সংস্থাগুলির কাছ থেকে কোনও পরিষেবাই নেয়নি তারা। অথচ তিনটি সংস্থাকে বিশাল পরিমাণ অর্থ পাঠানো হয়েছে। নানা ধরনের অযৌক্তিক উপায়ে সেই টাকা পেয়েছে ওই সংস্থাগুলি। টাকা পাঠানোর সময় ব্যাঙ্কগুলিকেও বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়েছে শাওমি। স্বত্ত্বের নামে টাকার হেরফের করে বিদেশি মুদ্রা বিনিময় আইনের ৪ নম্বর ধারা লঙ্ঘন করেছে চিনা সংস্থার ভারতীয় শাখা।

শাওমি,সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা,বাজেয়াপ্ত,ভারত,এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়