শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং নিয়ে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির সংবাদ সম্মেলন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - বাংলাদেশে ডেলইএমসি এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার চালু | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - চীনে স্কাইপ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - আসছে দুই সিমের আইফোন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য অসাধারণ অ্যাপ ফেসবুক-এর | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - ইয়োন্ডার মিউজিক বাংলাদেশের এক নম্বর মিউজিক অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - উদিয়মান ব্রান্ড হিসেবে লিনেক্স পেল ‘গ্লোবাল ব্রান্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৭’ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড ডিলার সেলিব্রেশন ২০১৭ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - এলো ডেলের নতুন ইন্সপাইরন এন৭৩৭০ ল্যাপটপ | বুধবার, নভেম্বর 22, 2017 - আবার স্মার্টফোনে ফিরছে ইন্টেল |
প্রথম পাতা / অর্থনীতি / আজ প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে মাস্টার কার্ডের বাংলাদেশ অফিস
আজ প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে মাস্টার কার্ডের বাংলাদেশ অফিস

আজ প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে মাস্টার কার্ডের বাংলাদেশ অফিস

আজ বুধবার বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো বিশ্বব্যাপি অনলাইন কেনাকাটা ও টাকা লেনদেনের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম মাস্টার কার্ডের বাংলাদেশ অফিস উদ্বোধন করা হচ্ছে। আজ রাজধানীর ওয়েস্টইন হোটেলে একMaster-Card-640_0 অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ অফিসের উদ্বোধন করা হবে। সন্ধ্যা ৭ টায় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বাংলাদেশে তফসিলভুক্ত ৫৬টি ব্যাংকের মধ্যে ৬টি ব্যাংক মাস্টার ডেবিট এবং ৯টি ব্যাংক মাস্টার ক্রেডিট কার্ড চালু করেছে। ব্যাংকগুলোর মধ্যে ৩ লাখ ৭৫ হাজার ৬১৫ টি ডেবিট মাস্টার কার্ড এবং এক লাখ ২৮ হাজার ৪৮টি ক্রেডিট মাস্টার কার্ড চালু রয়েছে। সবচেয়ে বেশি ডেবিট মাস্টার কার্ড চালু করেছে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড। ব্যাংকটির মাধ্যমে এক লাখ ১৩ হাজার ১১৩ টি ডেবিট কার্ড চালু রয়েছে। আর ক্রেডিট কার্ডের দিক দিয়ে সবচেয়ে বেশি কার্ড চালু করেছে প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড। ব্যাংকটি মাধ্যমে ৩৫ হাজার ৪৩১ টি মাস্টার ক্রেডিট কার্ড চালু রয়েছে।

এছাড়া প্রাইম ব্যাংক এক লাখ ৯ হাজার ৩১৩ টি, ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড ৭১ হাজার ৫৩০টি, দি সিটি ব্যাংক লিমিটেড ৬১ হাজার ৯৭১টি, প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড ১১ হাজার ৭০০টি এবং পূবালী ব্যাংক লিমিটেড ৭ হাজার ৯৮৮টি মাস্টার ডেবিট কার্ড চালু করেছে।
স্টান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংক ৩১ হাজার ৩৯৮টি, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড ২১ হাজার ৭৭৫টি, ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড ১৮ হাজার ৩২৮টি, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড ৯ হাজার ৪৭ টি, ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড ৭ হাজার ৯০২টি, প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড ৩ হাজার ২০০টি, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড ৬৮৩টি এবং ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংক লিমিটেড ২৮৪টি ক্রেডিট মাস্টার কার্ড চালু করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশে আগে থেকেই মাস্টার কার্ড চালু আছে। অনেক ব্যাংকই এ কার্ড ইস্যু করছে। আমেরিকা ভিত্তিক কোম্পানিটি বাংলাদেশে এখন তাদের ব্যবসাকে আরও বিকশিত করার জন্য প্রথম অফিস চালু করছে। এ মাস্টার কার্ড দিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে হোটেল বুকিং, এয়ার টিকিট বুকিং, কেনাকাটা এবং লেনদেন করা যায় বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৬ সালের ১৬ ডিসেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ‘মাস্টার চার্জ: দি ইন্টার ব্যাংক কার্ড’ নামে চালু করে একটি ব্যাংক। পরে ১৯৭৯ সালের ১৬ ডিসেম্বর এর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় মাস্টার কার্ড। কোম্পানিটির প্রধান কার্যালয় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়ার্কে অবস্থিত। ২০১২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত কোম্পানির মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল এক হাজার ২৪৬ কোটি ২০ লাখ (১২.৪৬২ বিলিয়ন) মার্কিন ডলার। বর্তমানে কোম্পানিটি ২১০টি দেশে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top