শিরোনাম

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - প্রিন্ট সাশ্রয়ী নতুন মডেলের ইপসন প্রিন্টার | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - গাড়ির ‘ভার্চুয়াল বাজার’ হচ্ছে কারমুদি | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - গ্যালাক্সি সি৯ প্রো স্মার্টফোনের প্রি-বুকিং শুরু | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - জোভাগোতে হোটেল বুকিং দিলে মিলবে স্মার্টফোন | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - ১ হাজার গ্রামে ফ্রি ওয়াই-ফাই দেবে ভারত | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - ব্যাগপ্যাকার্সে ৫০ শতাংশ ছাড় ঘোষণা | সোমবার, ফেব্রুয়ারী 6, 2017 - দেশের বাজারে নকিয়ার নতুন মোবাইল নকিয়া ১৫০ | সোমবার, ফেব্রুয়ারী 6, 2017 - টাই ঢাকার প্রেসিডেন্ট শামীম আহসান, ভাইস প্রেসিডেন্ট ফারজানা | সোমবার, ফেব্রুয়ারী 6, 2017 - ‘মায়া আপা প্লাস’ রবি গ্রাহকদের জন্য এসএমএস ও মোবাইল অ্যাপে | সোমবার, ফেব্রুয়ারী 6, 2017 - মেট্রোস্কাই নামে ক্লাউড ভিপিএস সার্ভিস চালু করল মেট্রোনেট |
প্রথম পাতা / প্রডাক্ট রিভিউ / মোবাইল ফোন / এক চার্জে তিন মাস চলবে ফোন!
এক চার্জে তিন মাস চলবে ফোন!

এক চার্জে তিন মাস চলবে ফোন!

এক চার্জে তিন মাসস্মার্টফোন এখন শুধু কথা বলার মাধ্যম নয়, তার চেয়েও বেশি কিছু। নানা কাজে ব্যবহার করা হয় ডিভাইসটিকে। তবে ব্যবহারের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চার্জ ফুরায় বলে ঝামেলাতেও পড়তে হয় ব্যবহারকারীদের।
ব্যাটারির চার্জ নিয়ে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের বিড়ম্বনার শেষ নেই। দ্রুত চার্জ ফুরিয়ে যাওয়ার কারণে চাইলেও অনেক কাজ করা যায় না। এই ঝামেলা থেকে বাঁচাতে নতুন এক প্রযুক্তি আনতে কাজ করছেন মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ে একদল গবেষক।
তারা এমন একটি উপাদান আবিষ্কার করেছেন, যা ব্যবহারে মাত্র একবার চার্জ করলে তিন মাস আর মোবাইল চার্জ করার প্রয়োজন পড়বে না।
এই উপাদানকে বলা হচ্ছে ‘ম্যাগনেটো ইলেকট্রিক মাল্টিফেরোইক’। গবেষকদের দাবি, এই উপাদান ব্যবহারের ফলে কম্পিউটার বা ল্যাপটপেও ক্রমাগত বিদ্যুৎ সরবরাহ করার প্রয়োজন পড়বে না। মাঝে মধ্যে প্রয়োজন মতো বিদ্যুৎ সরবরাহ করে দেবে উপাদানটি। তার ফলেই সচল থাকবে আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপ।
শুধু কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা মোবাইল-ই নয়, যে কোনও নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যবহার্য ইলেকট্রনিক বস্তুতে যদি এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়, তবে সারা বিশ্বে বিদ্যুৎ খরচের মাত্র উল্লেখযোগ্য হারে কমে যাবে।
মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রবীণ গবেষক জানিয়েছেন, এই প্রযুক্তি আসতে এখনও কিছু বছর সময় লাগবে। তবে যখন এর ব্যবহার শুরু হবে তখন বিশ্বজুড়ে বিদ্যুতের ব্যবহার এক ধাক্কায় অর্ধেকে নামিয়ে আনা সম্ভব হবে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top