শিরোনাম

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - প্রতিশ্রুতিশীল প্রযুক্তি বিষয়ক স্টার্টআপের খোঁজে সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - ফেইসবুকে কাউকে বন্ধু করার ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখা জরুরি | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - ম্যার্শম্যালো এখনো শীর্ষে | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকআপ দেবে ওয়ালটনের নতুন ফোন | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - হ্যাকারের হানায় ঝুঁকিতে সিক্লিনার ব্যবহারকারীদের ডিভাইস | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল রিয়ালিটি শো “বাংলালিংক নেক্সট টিউবার” | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - ড্যফোডিল পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের বৃত্তিপ্রাপ্তদের সংবর্ধনা | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 19, 2017 - এইচপি’র মাল্টিফাংশন কপিয়ার বাজারে | সোমবার, সেপ্টেম্বর 18, 2017 - টিভি বাংলাদেশ নিয়ে এসেছে সনির আকর্ষণীয় সব নতুন মডেলের টেলিভিশন | সোমবার, সেপ্টেম্বর 18, 2017 - স্মার্টফোনের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে যেসব গ্যাজেট |
প্রথম পাতা / সোশ্যাল মিডিয়া / টিভির চেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আগ্রহ তরুণদের
টিভির চেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আগ্রহ তরুণদের

টিভির চেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আগ্রহ তরুণদের

ccc3ba69f4b9969e3155c391004e70ff-Untitled-1

তরুণদের মধ্যে সংবাদের জন্য টেলিভিশনের ওপর নির্ভরশীলতা কমেছে, বেড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সংবাদ খোঁজার প্রবণতা। ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়সী তরুণদের মধ্যে পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, ২৮ শতাংশ মূল সংবাদমাধ্যম হিসেবে বেছে নিচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে, যেখানে টেলিভিশনে সংবাদ দেখছেন ২৪ শতাংশ তরুণ।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের চালানো এই সমীক্ষা আরও বলছে, ইন্টারনেট ব্যবহারে সক্ষম ৫১ শতাংশ মানুষ সংবাদের জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকেই বেছে নেন। সারা বিশ্বের ২৬টি দেশের প্রায় ৫০ হাজার লোকের ওপর এই জরিপ চালানো হয়। জরিপের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জরিপের ফলাফল সারা বিশ্বের সংবাদ সংস্থাগুলো এবং প্রকাশকদের ভবিষ্যৎ নিয়ে গভীরভাবে ভাবাচ্ছে। পুরোনো সংবাদমাধ্যমগুলোও ভাবছে কীভাবে অনলাইনে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করা যায়। মানুষের রুচির এমন পরিবর্তন পাল্টে দিচ্ছে ব্যবসায়িক হিসাবনিকাশও। দেখা গেছে, ইংরেজি পত্রিকার পাঠকদের মাত্র ১০ শতাংশ গত বছর টাকা খরচ করে পত্রিকা পড়েছেন। তাই বিজ্ঞাপনই সংবাদমাধ্যমগুলোর টিকে থাকার একমাত্র পথ। কিন্তু অনলাইনে ‘অ্যাড ব্লকার’ সুবিধাগুলো সেই রোজগারের পথটাও যেন বন্ধ করে দিচ্ছে। জরিপে দেখা গেছে, অনলাইনের খবরগুলোর ৪৪ শতাংশ ফেসবুকে, ১৯ শতাংশ ইউটিউবে এবং ১০ শতাংশ টুইটারে শেয়ার করা হয়।
তাই বলতেই হচ্ছে, ফেসবুক এখন শুধু যোগাযোগের নয়, বরং খবরের জন্যও বিশাল এক মাধ্যম। বিশেষ করে নারী এবং তরুণদের মাঝে ফেসবুকের খবর বেশি জনপ্রিয়। অন্যদিকে সংবাদপত্র ছাপার পরিমাণ দিন দিন কমে যাচ্ছে। সেই জায়গাটা দখল করে নিচ্ছে খবরের অনলাইন পোর্টালগুলো। সেখান থেকে খবর ছড়িয়ে পড়ছে ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সব মিলিয়ে ছাপার কাগজের তুলনায় খবর এখন হয়ে পড়েছে অনলাইননির্ভর।

সূত্রঃ বিবিসি                                                                                                                                               -মাহবুব শরীফ 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top