শিরোনাম

রবিবার, জুলাই 23, 2017 - কম দামে স্যামসাং এর স্মার্টফোন | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - ফেসবুকে চাকরি পেতে পারেন ৫ উপায়ে | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - ড্রাইভিংয়ে ঘুম তাড়াবে যে ডিভাইস | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - ‘স্টাডি ইন ইন্ডিয়া’ এর উদ্বোধন | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - শক্তিশালী ব্যাটারির সাশ্রয়ী স্মার্টফোন আনল ওয়ালটন | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দক্ষ জনবল তৈরী করছে বর্তমান সরকার -জুনাইদ আহমেদ পলক | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - হুয়াওয়ে লাকি ডে | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - দারাজে এখন সম্পূর্ণ ইন্টারেস্ট বিহীন ইএমআই পেমেন্ট | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - লিংকসীস এর ১৯০০ এমবিপিএস গতির ডুয়াল-ব্যান্ড ওয়্যারলেস রাউটার | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - আগামী মাসে স্যামসাং আনছে নতুন ডিভাইস |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / দুই শতাধিক সরকারি সেবা পাচ্ছে গ্রামের মানুষ ইন্টারনেটেই : পলক
দুই শতাধিক সরকারি সেবা পাচ্ছে গ্রামের মানুষ ইন্টারনেটেই : পলক

দুই শতাধিক সরকারি সেবা পাচ্ছে গ্রামের মানুষ ইন্টারনেটেই : পলক

অ্যাসোসিয়েশন ফর প্রগ্রেসিভ কমিউনিকেশনস (এপিসি) এর এশিয়া রিজিওনাল সম্মেলন ২০১৬ প্রথমবারের মত ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে শুরু হওয়া তিনদিনব্যাপি এই সম্মেলন শনিবার শেষ হয়েছে।
বাংলাদেশের এই সম্মেলনের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ এডুকেশন সোসাইটি (বিএফইএস) পরিচালিত আমাদের গ্রাম উন্নয়নের জন্য তথ্যপ্রযুক্তি প্রকল্প।
সম্মেলনের শেষ দিনে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।
apcপ্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ইন্টারনেট ব্যবহার করে বাংলাদেশের তরুণরা অনেক উদ্ভাবনী কাজ করছে। দেশের অনেক সরকারি সেবা এখন অনলাইনেই পাওয়া যাচ্ছে। তৃণমূলপর্যায়ে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। দেশের সকল ইউনিয়ন পরিষদে তথ্যসেবা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। যেখানে গ্রামের সাধারণ মানুষজন দুই শতাধিক সেবা পাচ্ছেন।
তিনি আরও বলেন, ইন্টারনেট এখন অনেক সহজলভ্য হয়েছে। সাধারণ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে কিভাবে সুবিধাভোগ করতে পারে এবং এর অপব্যবহার থেকে দূরে থাকবে সে বিষয়ে দেশজুড়ে নানা ধরনের কর্মসূচি পরিচালিত হচ্ছে। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাগুলোকে সাথে নিয়ে সরকারীভাবে আমরা আরও নতুন নতুন উদ্যোগ নিতে চাই।
অবাধ তথ্য প্রবাহ, তথ্যের নিরাপত্তা, সবার জন্য ইন্টারনেট সুবিধার মত বিষয়গুলো নিয়ে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে এশিয়ার জাপান, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, ফিলিপাইন, ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া ও বাংলাদেশের ১৪ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। এতে অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের নানা উদ্যোগ নিয়ে উপস্থাপনা, বাস্তবায়ন ও প্রতিবন্ধকতার নানা দিক তুলে ধরেন।
সম্মেলনের প্রথম দিনের আলোচনায় অংশ নিয়ে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তিবিদ মুনির হাসান বলেন, বাংলাদেশের সর্বত্র এখন দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা রয়েছে। তবে সব জায়গায় এখনো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মধ্যে অধিকাংশই এখন নিয়মিত ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো ব্যবহার করছেন। অবাধ তথ্য প্রবাহ ও ইন্টারনেটের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে সরকার তথ্য অধিকার আইন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন প্রণয়ন করেছে।
বাংলাদেশ এনজিওস নেটওয়ার্ক ফর রেডিও অ্যান্ড কমিউনিকেশন (বিএনএনআরসি) এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম বজলুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ বেতার ও এফএম রেডিও’র পাশাপাশি দেশে এখন ১৭টি কমিউনিটি রেডিও নিয়মিত সম্প্রচার করছে। সময় বাড়ার সাথে সাথে কমিউনিটি রেডিওগুলো জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এসব রেডিও’র মাধ্যমে স্থানীয় জনগণ সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ের বিভিন্ন তথ্যসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগের বিভিন্ন তথ্য আগেই জানতে পারছেন।
সম্মেলনের শেষ দিনে প্রধান বক্তা হিসেবে এপিসির সহকারী নির্বাহী পরিচালক চ্যাট গার্সিয়া রামিলো বলেন, এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে পারস্পারিক বন্ধন আরো দৃঢ় হবে। অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে প্রত্যেকেই নানাভাবে উপকৃত হবেন বলে আশা করছি।
সম্মেলনের আয়োজক আমাদের গ্রাম প্রকল্পের পরিচালক রেজা সেলিম জানান, বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের নানা উদ্যোগের কথা এপিসি এশিয়ার সদস্যদের জানানো এবং তাদের নানা উদ্যোগের কথা জানার ক্ষেত্রে এবারের সম্মেলন ফলপ্রসূ হয়েছে। ইন্টারনেট অধিকার, ইন্টারনেট নিরাপত্তা ও তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণমুখী ব্যবহার নিয়ে এপিসি’র গবেষণা জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে স্বীকৃত যা বাংলাদেশের জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। আশাকরি, বাংলাদেশ এপিসি’র সাথে সংযোগ বাড়িয়ে লাভবান হবে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top