শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - গাড়ি চালাতে এবার থেকে আর কোনও চাবির প্রয়োজন নেই! | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিজয়ী কাস্টমারদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে সিম্ফনি ঈদ অফার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিশ্বব্যাপী সাইবার হামলায় ৬ মাসেই ক্ষতি ৪০০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - এইচটিসি স্মার্টফোন ব্যবসা কিনতে গুগলকে গুনতে হবে ১১০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - টাকা না পেলে টেলিটক মারা যাবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড পরিদর্শনে হিটাচি এক্সক্লুসিভ টিম | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী’র ‘অ্যাসোসিও ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ারটেল’র ‘ইয়োলো ফেস্ট’ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় নতুন দেশি অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ড্যাফোডিলে ‘সমন্বিত শিক্ষণ পদ্ধতিতে গুগল ক্লাসরুমের ব্যবহার’ শীর্ষক লেকচার সেমিনার অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফলোআপ > ৪ আইজিডব্লিউ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ করল বিটিআরসি
ফলোআপ > ৪ আইজিডব্লিউ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ করল বিটিআরসি

ফলোআপ > ৪ আইজিডব্লিউ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ করল বিটিআরসি

সরকারের পাওনা প্রায় ১২০ কোটি টাকা গতকালের মধ্যে পরিশোধ করতে ছয় ইন্টারনেট গেটওয়ে প্রতিষ্ঠানকে (আইজিডব্লিউ) নির্দেশ দিয়েছিল নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।
কিন্তু ছয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দুটি গতকাল বিটিআরসিতে পারফরম্যান্স ব্যাংক গ্যারান্টি জমা দিয়েছে। বাকি চারটি প্রতিষ্ঠান বকেয়া পরিশোধ না করায় তাদের কার্যক্রম বন্ধের বিষয়ে গতকালই চিঠি দিয়েছে বিটিআরসি।বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, বকেয়া পরিশোধে ব্যর্থ চার আইজিডব্লিউ প্রতিষ্ঠান হলো— মসফাইভ টেল, এসএম কমিউনিকেশন, ফার্স্ট কমিউনিকেশন ও সেল টেলিকম। গতকাল ব্যাংক গ্যারান্টি জমা দিয়েছে র্যাংকস টেলিকম ও সিগমা ইঞ্জিনিয়ার্স।
IGW-BTRC
এ প্রসঙ্গে বিটিআরসির সহকারী পরিচালক (মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন্স) জাকির হোসেন খান বণিক বার্তাকে বলেন, ছয় আইজিডব্লিউ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দুটি ব্যাংক গ্যারান্টি জমা দিয়েছে। কার্যক্রম বন্ধের বিষয়ে গতকালই বাকি চার প্রতিষ্ঠানকে চিঠি দেয়া হয়েছে।
বকেয়া পরিশোধ না করায় এর আগে আরো ছয় প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ করেছে কমিশন। এগুলো হলো— ভিশনটেল, বেসটেক টেলিকম, রাতুল টেলিকম, টেলেক্স, কেএওয়াই টেলিকমিউনিকেশন্স ও অ্যাপল গ্লোবালটেল কম লিমিটেড।
নিয়মিত অর্থ পরিশোধ না করায় প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে বকেয়া থাকা বিপুল অঙ্কের অর্থ আদায়ের লক্ষ্যে গত অক্টোবরে নীতিমালা সংশোধন করে বিটিআরসি। সংশোধিত নীতিমালা অনুযায়ী, আইজিডব্লিউগুলোকে ব্যাংক গ্যারান্টি হিসেবে অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম সাড়ে ৭ কোটি টাকা রাখতে হবে। এক বছরের জন্য এ ব্যাংক গ্যারান্টি দেয়ার বাধ্যবাধকতা দেয়া হয়। তবে সংশোধনের আগে নীতিমালা অনুযায়ী প্রতিটি আইজিডব্লিউর জন্য ব্যাংক গ্যারান্টি নির্ধারিত ছিল ১৫ কোটি টাকা।
সম্প্রতি বার্ষিক লাইসেন্স ফি ও রাজস্ব আয়ের ভাগাভাগির অংশসহ অন্যান্য পাওনা নিয়মিত না দেয়ায় আইজিডব্লিউগুলোর বকেয়ার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় হাজার কোটি টাকা। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাংক গ্যারান্টি রাখার বিষয়ে প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ দেয় কমিশন। প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে থাকা সরকারের পাওনা অর্থ সমন্বয়ের উদ্দেশেই ব্যাংক গ্যারান্টির বিষয়ে এ বাধ্যবাধকতা দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা।
বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, র্যাংকস ও সিগমার কাছে সরকারের পাওনা প্রায় ২৪ কোটি টাকা। তবে প্রতিষ্ঠান দুটি ব্যাংক গ্যারান্টি হিসেবে দিয়েছে ১৫ কোটি টাকা। বাকি চার প্রতিষ্ঠানের কাছে সরকারের পাওনা প্রায় শতকোটি টাকা।
এদিকে আইজিডব্লিউ লাইসেন্স পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য বার্ষিক লাইসেন্সিং ফিও কমিয়ে অর্ধেক করা হয়েছে। নীতিমালা সংশোধন করে প্রতিষ্ঠানগুলোর এ ফি কমানো হয়েছে। আগে যেখানে প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানকে বার্ষিক লাইসেন্স ফি সাড়ে ৭ কোটি টাকা দিতে হতো, তা সংশোধন করে এখন ৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
বর্তমানে দেশে আইজিডব্লিউ লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২৯। ২০০৮ সালে অনুষ্ঠিত নিলামের মাধ্যমে লাইসেন্স পায় চার প্রতিষ্ঠান। আর গত বছরের এপ্রিলে নতুন ২৫টি প্রতিষ্ঠানকে এ লাইসেন্স দেয় কমিশন। আইজিডব্লিউগুলো আন্তর্জাতিক কল আদান-প্রদান করছে। আর আইজিডব্লিউর মাধ্যমে আসা কল গ্রাহক পর্যায়ে পৌঁছে দিচ্ছে সেলফোন ও ফিক্সড ফোন অপারেটররা।

 

 

আগের খবরঃ

ছয় আইজিডব্লিউ বন্ধ হচ্ছে আজ

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top