শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী 22, 2018 - এলো টোটেলিংক এর হাই স্পীড ওয়াইফাই রাউটার | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী 22, 2018 - সবুর খান ডব্লিউবিএএফ-এর বাংলাদেশ হাই কমিশনার নিযুক্ত | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী 22, 2018 - সিন্দাবাদ ডট কম-এর সাথে যুক্ত হলো মাই আউটসোর্সিং লিমিটেড | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী 22, 2018 - জাকারবার্গকে হারিয়ে দিলেন প্রিয়া | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী 22, 2018 - যা থাকছে সনির ফ্ল‍্যাগশিপ ফোনে | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলায় কাইজালা উন্মোচন করল মাইক্রোসফট | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - ওয়ালটনের ফোরজি ফোনে ক্যাশব্যাক | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - বইমেলায় ড. হাসান বাবুর নতুন বই ‘একটি স্বপ্ন একটি দেশ, ডিজিটাল বাংলাদেশ’ | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - খুলনায় বাংলালিংক এর ফোরজি চালু | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - বন্ধ হচ্ছে উইকিপিডিয়ার ডেটা ছাড়া তথ্যসেবা |
প্রথম পাতা / ফ্রিল্যান্সিং / বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা পেমেন্ট নিতে জুম ব্যবহার করতে পারবে না
বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা পেমেন্ট নিতে জুম ব্যবহার করতে পারবে না

বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা পেমেন্ট নিতে জুম ব্যবহার করতে পারবে না

xoomসরকারিভাবে ঢাকঢোল পিটিয়ে বাংলাদেশে জুম সার্ভিস এর উদ্বোধন করা হয় বৃহস্পতিবার। আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক ফ্রিল্যান্সারদের কনফারেন্সে বলেন জুম ব্যবহার করে বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা আরো দ্রুত এবং সহজে ক্লায়েন্টদের কাছ থেকে পেমেন্ট আনতে পারবেন। তবে জুমের ইউজার এগ্রিমেন্ট বলছে ভিন্ন কথা। জুমের ইউজার এগ্রিমেন্ট অনুযায়ী যেকোন রকম ব্যবসায়ীক লেনদেন এবং সার্ভিসের বিনিময়ে পেমেন্ট করা নিষিদ্ধ। কেউ এই ধরনের লেনদেন করলে কর্তৃপক্ষ ইউজার একাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে বলে উল্লেখ করা হয় ইউজার এগ্রিমেন্টে। (https://www.xoom.com/user-agreement#restrictions) অতএব বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা তাদের ক্লায়েন্টদের কাছে থেকে পেমেন্ট নেয়ার জন্য জুম ব্যবহার করতে পারবেননা।

মশিউর রহমান নামের একজন ফ্রিল্যান্সার ইমেইল বার্তায় জানান, সরকারী কর্তৃপক্ষ রাষ্ট্রীয় খরচে একাধীকবার পেপাল-জুমের অফিসে ঘুরে আসলেন অথচ এতোটুকু জানলেন না যে জুম এর মাধ্যমে শুধুমাত্র আত্মীয় স্বজন এবং বন্ধুবান্ধবকে টাকা পাঠানো যায়।

এর বাইরে ব্যবসায়ীক লেনদেন করার সুযোগ তারা দেয়না। তিনি দাবি করে বলেন, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুমকে পেপালের সাথে মিলিয়ে ঘুলিয়ে একাকার করে ফেলেছেন। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী পেপাল বলতে পেপালের ই-ওয়ালেট সার্ভিসকে বোঝায়। অপরদিকে জুম সম্পূর্ণ সতন্ত্র একটা কোম্পানি ছিল যা কিছুদিন আগে পেপাল কিনে নিয়েছে। বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সারদের পেপাল দরকার। কারণ ক্লায়েন্টরা বেশিরভাগ পেপাল ব্যবহার করে এবং পেপালে পেমেন্ট করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। বাংলাদেশে জুম-পেপাল কানেক্টিভিটির উদ্বোধন এবং ফ্রিল্যান্সারদের সাথে কনফারেন্স করা ছিল সম্পূর্ণ অযৌক্তিক এবং বিভ্রান্তিমূলক।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top