শিরোনাম

মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ডিজিটাল পেমেন্ট সার্ভিস ইউপের যাত্রা শুরু | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হুয়াওয়ে মেট ১০ এ যা আছে | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - শাওমির নতুন ফোন রেডমি ৫এ | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ফাঁস হয়ে গেল নোকিয়া ৯ এর গোপন সমস্ত তথ্য | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হ্যাকারদের লক্ষ্য বাংলাদেশসহ অন্যান্য এশিয়ার দেশগুলোর ব্যাংকগুলো | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - এডিএন ইডু সার্ভিসেস এর উদ্দেগে এজাইল বিষয়ক কর্মশলা অনুষ্ঠিত | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - প্রথম ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ডসে গ্রামীণফোনের ব্যাপক সাফল্য | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - গুগলের এই এয়ারপড হেডফোন যখন ট্রান্সলেটর | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - কম্পিউটার গেমের আসক্তিতে হতে পারে ভয়াবহ পরিণতি | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - ওটিসি ড্রাগ বিষয়ে সচেতনতা জরুরি |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / বিটিআরসির নির্দেশনা বাতিলে অর্থমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান জিপি’র সিইও
বিটিআরসির নির্দেশনা বাতিলে অর্থমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান জিপি’র সিইও

বিটিআরসির নির্দেশনা বাতিলে অর্থমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান জিপি’র সিইও

muhit-gpটেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি’র নানা ধরনের নির্দেশনা বাতিলে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন গ্রামীণফোনের নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পিটার ডি ফারবার্গ।

বিটিআরসির আরোপিত বিভিন্ন শর্ত বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন  পিটার।

সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রী এমএ মুহিত বলেন, বিটিআরসি’র আরোপ করা বিভিন্ন শর্তের কারণে গ্রামীণফোনসহ অন্যান্য মোবাইল ফোন অপারেটরদের সমস্যা হচ্ছে। এতে গ্রাহকরাও অসুবিধায় পড়ছেন বলে  জিপির সিইও পিটার ডি ফারবার্গ জানিয়েছেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘গ্রামীণফোন বর্তমানে তরঙ্গ ফি’সহ (ফ্রিকোয়েন্সি ফি) সবমিলিয়ে ৪০ শতাংশের করপোরেট ট্যাক্স দেয়। যেহেতু এ টাকা সরকারি কোষাগারেই যায়, তাই এখাত থেকে ৫ শতাংশ হারে ট্যাক্স প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছেন পিটার। এছাড়া অ্যাপলিকেশনসের (অ্যাপস) দাম কোনোভাবেই ৫০ টাকার বেশি না করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।’

সমাধান প্রসঙ্গে মুহিত বলেন, ফ্রিকোয়েন্সি বা তরঙ্গের জন্য কোম্পানিগুলোর দেওয়া টাকা সরকারি কোষাগারেই যায়। তাই এতে ট্যাক্স বসানোর কোনো যৌক্তিকতা থাকতে পারে না। বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

তবে প্রিয়.কমে প্রকাশিত সংবাদের প্রেক্ষিতে গ্রামীণফোন এক লিখিত বক্তব্যে বলেছে, ‘জিপি সিইও বিটিআরসির বিষয়ে কিছু বলেনি। অভিযোগও করেনি। পিটার অনুমানহীন এবং বারংবার ভ্যাট আরপের বিষয়ে মাননীয় মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। সিইও বলেন ভ্যাট আরোপের বিষয়টি অনুমান করতে না পারায় অনেক্ষেত্রে অসুবিধা হচ্ছে!’

গ্রামীণফোন আরও জানিয়েছে, ‘মোবাইল ওয়ালেট এর মাধ্যমে অ্যাপ কেনার প্রসঙ্গে পিটার বর্তমান সিলিং বাড়ানোর জন্য অনুরোধ করেন (এখন সিলিং ৫০ টাকা) এবং পিটার কর্পোরেট ট্যাক্স ৫% কমানোর কথা বলেননি। পিটার বলেন টেলিযোগাযোগ খাতে ৪৫% কর্পোরেট ট্যাক্স নেয়া হয় যা অনেক বেশি।’

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top