শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - উইপ্রোর সঙ্গে চুক্তির কথা স্বীকার করল গ্রামীণফোন | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - লেনোভোর নতুন আর্কষন – আইডিয়াপ্যাড ৩২০ | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - হজ্ব রোমিং প্যাকেজ চালু করল রবি | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - অনলাইন প্রশিক্ষণ সেবা চালু করলো ক্রিয়েটিভ-ই-স্কুল | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - ল্যাপটপের চার্জ বাড়ানোর উপায় সমূহ | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - যেসব তথ্য ফেইসবুকে গোপন রাখা উচিত | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - গুগলের মোবাইল সার্চ অ্যাপে পরিবর্তন | বুধবার, জুলাই 19, 2017 - আমারি ঢাকাতে ফ্রাইডে ব্রাঞ্চ | বুধবার, জুলাই 19, 2017 - ঢাকায় বিজনেস ইনোভেশন সামিট ও আইডিয়া চ্যালেঞ্জ | বুধবার, জুলাই 19, 2017 - আসুস নিয়ে এলো বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী গেমিং ল্যাপটপ |
প্রথম পাতা / ইন্টারভিউ / মোবাইল ব্যবসায় শীর্ষ স্থানে যেতে চায় ট্রান্সান বাংলাদেশ
মোবাইল ব্যবসায় শীর্ষ স্থানে যেতে চায় ট্রান্সান বাংলাদেশ

মোবাইল ব্যবসায় শীর্ষ স্থানে যেতে চায় ট্রান্সান বাংলাদেশ

tracenবিশ্বব্যপী মোবাইল ব্যবসায় সফলতা অর্জনের পর সম্প্রতি বাংলাদেশে  অনুষ্ঠানিক ভাবে ব্যবসা শুরুর লক্ষ্যে ট্রান্সান বাংলাদেশ লি. যাত্রা শুরু করছে যা মূলত চীনের বিখ্যাত ‘ট্রান্সান হোল্ডিংস’এর বাংলাদেশ অপারেশন অফিস। ট্রান্সান  বিশ্বাস করে, বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম দ্রুত বর্ধনশীল মোবাইলফোন বাজার। ভোক্তাদের চাহিদা মোতাবেক বিভিন্ন পণ্য ও সেবা দিতে ট্রান্সান  সর্বদা নিয়োজিত। প্রতিষ্ঠানটি তাদে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে ট্রান্সান  বাংলাদেশ লি. এর প্রধান নির্বাহী হিসেবে যোগ দিয়েছেন রেজওয়ানুল হক

মোবাইল শিল্পের সঙ্গে রয়েছে রেজওয়ানুল হকের ১৫ বছরের মূল্যবান অভিজ্ঞতা। এমবিএ ডিগ্রিধারী এই ব্যক্তির রয়েছে উত্পাদন, বিক্রি ও গ্রাহক সেবাসহ মোবাইল শিল্পের প্রায় সব দিকেই অভিজ্ঞতা। তিনি একজন পেশাদার ব্যক্তি, এই শিল্পের প্রায় সর্বস্থরের লোকজনের সঙ্গে রয়েছে তার সম্পর্ক।

দীর্ঘদিন তিনি মোবাইল ইম্পোর্টাস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিন ক্যাটাগরির তিনটি ব্র্যান্ড টেকনো, আইটেল ও ইনফিনিক্স নিয়ে বাংলাদেশের মোবাইল মার্কেটের শীর্ষ স্থানে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন রেজওয়ান।

transion-brandবর্তমানে বাংলাদেশের বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন পাওয়া যাচ্ছে। কোন মোবাইল ফোনের কেমন সার্ভিস এবং বিক্রয়োত্তর সেবা কেমন তা নিয়ে কথা হয় রেজাওয়ানুল হকের সঙ্গে । তিনি বলেন,‘কাস্টমাররা চায় একটি গ্রহণযোগ্য মূল্য। যার মধ্যে তারা পাবে তাদের কাঙ্খিত পণ্যটি। বলাযেতে পারে, পণ্য ক্রয়ের  পূর্বে কাস্টমাররা তিনটি বিষয়ে বেশ গুরুত্ব দেয়। এক. পণ্যটির মূল্য যাতে তাদের  ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকে।  দুই. পণ্যটির কোয়ালিটি যাতে ভাল হয়। মোবাইলের শখ আমাদের আছে কিন্তু আমরা আমাদের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে বেস্ট কোয়ালিটি চাই । তিন. ইউজার এক্সপেরিয়েন্স। এখানে অনেক কোম্পানিই বলে আমরা ১ জিবি র্যাম দিয়েছি, ১৬ জিবি রোম দিয়েছি, ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়েছি, ব্যাটারিতে চার্জ থাকবে দুই দিন এমন ফিচারগুলো কাস্টমারদের সামনে হাজির করে মোবাইল সেট বিক্রি করছে অনেকেই। বাস্তবে দেখা যায় র্যাম, রোম, ক্যামেরার মেগাপিক্সেল, ব্যাটারি ও স্কিনটাচ ইত্যাদিতে প্রতারণা করছে। গ্রাহক পর্যায়ে এগুলো সঠিকভাবে বোঝার কোনো উপায় নেই। গ্রাহকরা বিশ্বাস করে তা কিনে নিচ্ছে।’

তিনি আরও জানান, মোবাইল সেট উত্পাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ট্রান্সান  হোল্ডিংস কোম্পানিটি অন্যতম। পৃথিবীর প্রায় ৫০টি দেশে এই কোম্পানিটির কার্যক্রম বর্তমানে চালু রয়েছে। বিশ্বব্যপী এই কোম্পানির অনেকগুলো নিজস্ব কারখানা রয়েছে। বিশেষকরে আফ্রিকাতে নাম্বার ওয়ান ব্র্যান্ড হলো ট্রান্সান  এবং এশিয়াতেও রয়েছে এর কার্যক্রম। সম্প্রতি এশিয়াতে ফোকাসট করার চেস্টা করছে। গতবছর থেকে ভারতে এর মার্কেটিং শুরু হয়। ইতোমধ্যে ভারতে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে এই ব্র্যান্ডটির মোবাইল। বর্তমানে ভারতে প্রথম অবস্থানে রয়েছে স্যামসাং। আমরা এবার বাংলাদেশের দিকে নজর দিয়েছি। আমরা আপাতত আইটেল ও টেকনো এই দুইটি ব্র্যান্ড নিয়ে বাংলাদেশে কার্যক্রম চালু করেছি। দুইটি ব্র্যান্ড নিয়ে আমাদের কার্যক্রম চালুর পিছনের কারণ হলো- আমরা সব শ্রেণির কাস্টমারদের টার্গেট করছি।  এর মধ্যে আইটেল হলো দামে একটু শস্তা এবং টেকনো হলো হাই ফিচারের স্মার্ট ফোন। ইনফেনিক্স ব্র্যান্ডের একটি ফোন আপাতত বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যায়। এটিও আমাদেরই। এখন পর্যন্ত এই ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোনগুলো অনলাইনে কেনাবেচা হয়। আমাদের পণ্যের কোয়ালিটি নিয়ে গ্রাহকদের কোন চিন্তা করতে হবে না। আমরা আমাদের পণ্যগুলো বিক্রির ১০০ দিনের মধ্যে রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি দিচ্ছি যা, আমাদের দেশের বাজারের জন্য ঝুকিপূর্ণও বলা যেতে পারে।

মার্কেটে যাচাই করলে দেখা যাবে আমাদের পণ্যের বিপরীতে ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতা একটি গ্রহণযোগ্য অবস্থানে রয়েছে। বর্তমান বাজারে আমাদের ব্র্যান্ডের মোবালের দাম সবচেয়ে কম এবং কোয়ালিটিতে আপোষহীন। বাংলাদেশে আমরা সম্পূর্ণভাবে কার্যক্রম আগামী একমাসের মধ্যে শুরু করতে যাচ্ছি। প্রচার প্রচারণা থেকে শুরু করে আমাদের যাবতীয় কার্যক্রম আপনাদের নজরে আসবে। সারা বাংলাদেশে আমরা ব্র্যান্ড শপ করছি। গ্রাহক সেবার যাবতীয় বিষয় আমাদের নজরে রয়েছে। ইতোমধ্যে আমাদের কাজ প্রায় শেষের দিকে।

Rezwanul-Hoqueআমাদের ভাবিষ্যত্ পরিকল্পনায় রয়েছে আমরা বাংলাদেশের মার্কেটে একটি সম্মানজনক যায়গায় যেতে চাই। এক্ষেত্রে আমাদের মূলধন হলো পণ্যের কোয়ালিটি ও বিক্রয়োত্তর সেবা যা আমরা কাস্টমারদের দিতে পারবো। বাংলাদেশে প্রতিবছর ৩ কোটি মোবাইল সেট বিক্রি হয় এবং মোবাইল ফোনের বর্তমান মার্কেট সাইজ সাড়ে আট হাজার কোটি টাকা। মোবাইল কোম্পানিগুলোর মধ্যে আমরা এ দেশে রাজস্ব প্রাদানে প্রথম অবস্থানে থাকতে চাই। আশা করছি খুব দ্রুত তা পারবো।

বিক্রয়োত্তর সেবা নিয়ে বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে গ্রাহকরা অশন্তোস হয় প্রায়ই। এ দেশে এমন কোনো প্রতিষ্ঠান নেই যেখানে একসঙ্গে ২ থেকে ৩ কোটি মোবাইল ফোনের বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে সক্ষম। আবার যারা এই সেবাগুলো দিয়ে আসছে অর্থাত্ যারা টেকনিশিয়ান হিসেবে কাজ করছে তারা বেশির ভাগই যোগ্যতার দিক থেকে নিম্ম মানের। মোবাই ফোন মেরামত শেখার জন্য বাংলাদেশে তেমন কোনো প্রতিষ্ঠান নেই।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত যতোগুলো মোবাইল ফোন কোম্পানি কার্যক্রম শুরু করেছে প্রত্যেকেই তাদের মূল কার্যক্রম দেশের বাইরে থেকেই করছে।  চায়না ভিত্তিক ‘ট্রান্সান  হোল্ডিংস’ মোবাইল কোম্পানি সরাসরি আমাদের দেশে এই প্রথম তাদের যাবতীয় কার্যক্রম চালু করতে যাচ্ছে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top