শিরোনাম

শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - দারাজ ডট কম থেকে মোবাইল কিনে গ্রাহক নাজেহাল! | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - ই-শপ প্রকল্পের হেল্প লাইনের এ কী হাল! | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - স্পিকার এর যত্নআত্তি | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - সীমান্তে অবৈধ বিটিএস স্থাপন করায় বাংলালিংককে ১৭ কোটি টাকা জরিমানা | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - তথ্যপ্রযুক্তি ও সেবার রপ্তানি খাতে ১০ শতাংশ নগদ সহায়তা | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - বাংলালিংকও চালু করলো ই-কমার্স সাইট | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - এক অ্যাপেই সরকারি সব কর্মকর্তাদের ঠিকানা | শনিবার, আগস্ট 19, 2017 - ‘ইনফো সরকার’ প্রকল্পের অনিয়ম রোধে অর্থমন্ত্রীকে আইএসপিএবি’র চিঠি | বৃহস্পতিবার, আগস্ট 17, 2017 - গ্রামীণফোনের সিএফও হলেন কার্ল এরিক ব্রোতেন | বৃহস্পতিবার, আগস্ট 17, 2017 - বন্যা-দুর্গত এলাকার গ্রাহকদের ২০মিনিট ফ্রি টক-টাইম ও ২০এমবি ডাটা দিচ্ছে রবি |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / মোবাইল ব্যবসা থেকে সরে আসছে এসার
মোবাইল ব্যবসা থেকে সরে আসছে এসার

মোবাইল ব্যবসা থেকে সরে আসছে এসার

acer-mobসম্প্রতি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এসার ভারতে স্মার্টফোন ব্যবসা থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়েছে। ইতোমধ্যে তারা স্মার্ট ফোন উত্পাদনের যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। এর কারণ হিসেবে তারা জানিয়েছে- ভারতে স্মার্টফোনের বাজারে যথেষ্ট মূল্য প্রতিযোগিতার মতো ব্যপার রয়েছে।

গত বছর তারা ভারতে স্মার্টফোনের ব্যবসা চালু করে ছিল। যাইহোক, তাদের ব্যবসায়ীক কৌশল হিসেবে তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারা যে কোনো বড় ব্র্র্যান্ডের সাথে প্রতিযোগিতার যোগ্যতা রাখে বলে বিসনেস স্ট্যান্ডার্ড এর একটি সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন ভারতের এসারের ম্যানেজিং ডিরেক্টর হারিশ কহলি।

তিনি আরও বলেন, আমরা আপাতত এটার উত্পাদন বন্ধ করছি তবে আবারও জোড়ালো ভাবে ভারতে উত্পাদন শুরুও করতে পারি। কহলি বলেন, মোবাই ব্যবসা শুরু হয় পাইলটের মতো।

ইদানিং ই- কমার্স সাইটগুলোতেও এসারের পণ্য বিক্রি হতে দেখা যায়। এগুলোর মধ্যে ফ্লিপকার্ড, অ্যামাজনও রয়েছে। ৯৭ শতাংশের কাছাকাছি এসারের রেমিটেন্স আয় হয় তথ্যপ্রযুক্তির হার্ডওয়্যার পণ্য বিক্রির মাধ্যমে। যাইহোক, মোবাইল ফোনের ব্যবসা একটি ঝুকিপূর্ণ খেলা কারণ কম দামে দারূন চাকচিক্য , সৌন্দর্য্য ও কোয়ালিটি  দেখাতে হয়।

কম্পিউটিং এর ক্ষেত্রে ভারতে ১০ শতাংশ বাজার ধরে রেখেছে এসার।এ বিষয়ে কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর হরিশ কোহলির মতে, গত বছরেরই স্মার্টফোন ব্যবসায় বিনিয়োগ করার প্রয়াস নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু পরে মতামত পরিবর্তন করা হয় কেননা মেক ইন ইন্ডিয়া চালু হওয়ার ফলে ছোট ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে তা ফলপ্রসু হলেও বড় কোম্পানির ক্ষেত্রে তা হয়নি। বর্তমানে এসারের বড় সংখ্যার একটি অর্থ আসে তথ্য প্রযুক্তি সংক্রান্ত ব্যবসা থেকে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top