শিরোনাম

বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - পোক ফিচারটি ফিরিয়ে আনছে ফেসবুক | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - গ্রামীণফোনের প্যানেল আলোচনায় ডিজিটাল চট্টগ্রামের রূপরেখা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - জরুরি সেবা ৯৯৯ এর উদ্বোধন করলেন জয় | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - নতুন অ্যাপ ‘ফাইলস গো’ চালু করেছে গুগল | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বাজারে এলো শাওমির নতুন দুই ফোন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বিশ্ব বিখ্যাত পাঁচ রাঁধুনি রোবট |
প্রথম পাতা / স্থানীয় খবর / শুরু হল প্রথম“সিরামিক এক্সপো বাংলাদেশ– ২০১৭”
শুরু হল প্রথম“সিরামিক এক্সপো বাংলাদেশ– ২০১৭”

শুরু হল প্রথম“সিরামিক এক্সপো বাংলাদেশ– ২০১৭”

ceramic

“বাংলাদেশ সিরামিক ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিসিএমইএ)” আয়োজন করছে তিন দিনব্যাপী”সিরামিক এক্সপো বাংলাদেশ-২০১৭”।আজ আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি) এর হল-০৪ এ হয়ে গেল এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন। উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় বানিজ্য মন্ত্রী জনাব তোফায়েল আহমেদ, এমপি।এসময় উপস্থিত ছিলেন মো.সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, এমপি, সভাপতি, বিসিএমইএ এবং জনাব ইরফান উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক, বিসিএমইএ এবং চেয়ারম্যান, ফেয়ার প্রজেক্টিং কমিটি।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শেখ ফজলে ফাহিম, ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট, এফবিসিসিআই ;নজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, এনবিআর; ময়নুলইসলাম, সিনিয়রসহ-সভাপতি,বিসিএমইএ সহ আরও অনেকে।

সিরামিক নিয়ে এটি দেশের প্রথম সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী ও সেমিনার। ৩০ নভেম্বর শুরু হয়ো এ মেলা চলবে  ০২ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি) এর হল-০৪ এ।মেলা প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মেলার দর্শনার্থীদের জন্য।প্রস্তুতকারক, রপ্তানিকারক এবং সরবরাহকারীরা তাদের নতুন পণ্য, আধুনিক প্রযুক্তি এবং নিজেদের দক্ষতা বিশ্বব্যাপী তুলে ধরবেন। এতে করে বিশ্বের কাছে তাদের ভাবমূর্তি বাড়বে এবং পুরো প্রক্রিয়াতে নতুন মান যোগ করবে।মেলায় ১৩ টি দেশের মোট ৬০টি কোম্পানি অংশগ্রহন করবে। থাকবে ৩০০আন্তর্জাতিক প্রতিনিধি, ৫০জন বায়ারস হোস্ট, ১০০টির বেশি বুথ, ১০০ এর বেশি ব্র্যান্ড ইত্যাদি।
বিসিএমইএ এর সাধারন সম্পাদক ইরফান উদ্দিন বলেন, “১৯৯২ সালে প্রতিষ্ঠিত হবার পর থেকে ইবিসিএমইএ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে সিরামিক সেক্টরে। ২০টি টেবিলওয়ার ম্যানুফেকচারার থেকে বছরে ২৫০ মিলিয়ন পিস সিরামিক প্রোডাক্ট তৈরি হচ্ছে। ২৬ টি টাইলস প্ল্যান্ট থেকে ১২০ মিলিয়ন স্কয়ার মিটার টাইলস এবং ১৬ টি স্যানিটারি ওয়ার প্রোডাক্ট কোম্পানি থেকে ৭.৫ মিলিয়ন পিস প্রোডাক্ট তৈরি হচ্ছে।”তিনি আরও জানান, বর্তমানে ৫০ টি দেশে আমাদের দেশের সিরামিক পন্য রপ্তানি করছে। এই খাতে এখন সব মিলিয়ে বিনিয়োগের পরিমাণ এক বিলিয়ন ইউএস ডলার এবং বার্ষিক আয়ের পরিমাণ প্রায় ৫০ মিলিয়ন ইউএসডলার।

মো.সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, এমপি, সভাপতি, বাংলাদেশ সিরামিক ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিসিএমইএ) বলেন, “বর্তমানে দেশে ৩ ক্যাটাগরিতে ৬২ প্ল্যান্ট আছে। সামনে আরও নতুন কোম্পানি আসছে।  শুধু তৈরি পোষাক নয় সিরামিক ইন্ডস্ট্রিতেও বাংলাদেশ বৈদেশিক মূদ্রা অর্জনে অনেক এগিয়ে থাকব। তবে আমাদের কাচামালের দাম কমাতে হবে। নাহলে প্রতিযোগীতায় পিছিয়ে পড়তে হবে। চট্টগ্রামের বন্দরে দুই মাসের আগে আমরা মাল খালাস করতে পারিনা। পরিকল্পনা করতে হবে এটা থেকে কিভাবে বের হওয়া যায়। বাকী দুটো বন্দরও কিভাবে কাজে লাগানো যায় সে ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়কে অনুরোধ করছি।“

শেখ ফজলে ফাহিম, ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট, এফবিসিসিআই বলেন, “এখন সিরামিক ইন্ডাস্ট্রি লেভেল এক এ আছে। এই মেলা থেকেই শুরু হোক লেভেল দুই এ যাবার প্রক্রিয়া। তা করতে বিসিএমইএ কে সব ধরনের সহযোগীতা দিতে এফবিসিসিআই সর্বদা প্রস্তুত।’গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় বানিজ্য মন্ত্রী জনাব তোফায়েল আহমেদ, এমপি বলেন, ”প্রথমবারের মত আন্তর্জাতিক আয়োজন সিরামিক এক্সপো বাংলাদেশ হচ্ছে, এটাই প্রমাণ করে ইন্ডাস্ট্রি হিসেবে এটি বেড়ে চলেছে| বছরে সিরামিক খাত থেকে আমাদের আয়ের পরিমান প্রায় ৫০ মিলিয়ন ডলার।আমাদের পঞ্চবর্ষিকী পরিকল্পনায় সিরামিক সাত নম্বরে আছে। সামনে শুল্ক মুক্ত রপ্তানীর সুযোগ পাবে সিরামিক। বন্দর সমস্যা নিয়েও আমরা কাজ করছি। আগামী ২১ তারিখে এই নিয়ে বিশেষ একটা মিটিং আছে। আমরা চেষ্টা করব চট্টগ্রামের পাশাপাশি অন্যান্য বন্দরগুলো যেন আরও ফল প্রসুভাবে ব্যবহার করা যায়।”বাংলাদেশের সিরামিক শিল্পে ব্যবহৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের মধ্যে কোনও সালফার থাকেনা এবং এরকারণেই দেশের সিরামিক পণ্যগুলি  উজ্জ্বল এবং চকচকে দেখায়।সিরামিক শিল্পে বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ প্রতিদ্বন্দ্বী চীন ও ভারত।কিন্তু তারা বেশির ভাগই ঐতিহ্যবাহী আইটেম উৎপাদন করে।তাছাড়া, বিশ্বব্যাপী আর্থিক সঙ্কট ও ক্রমবর্ধমান শ্রম মূল্যের কারণে, উন্নতদেশগুলি বাংলাদেশের মতো কম খরুচে দেশে আরও বেশি কাজ দিচ্ছে।

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top