শিরোনাম

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - জরুরি সেবা ৯৯৯ এর উদ্বোধন করলেন জয় | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - নতুন অ্যাপ ‘ফাইলস গো’ চালু করেছে গুগল | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বাজারে এলো শাওমির নতুন দুই ফোন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বিশ্ব বিখ্যাত পাঁচ রাঁধুনি রোবট | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - সনি’র দুর্দান্ত এক আপকামিং ফোনের তথ্য ফাঁস | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - বিসিএস এর ২৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / স্ট্রিট ভিউ ডিভাইস কাঁধে নিয়ে ৫ লাখ কি.মি.
স্ট্রিট ভিউ ডিভাইস কাঁধে নিয়ে ৫ লাখ কি.মি.

স্ট্রিট ভিউ ডিভাইস কাঁধে নিয়ে ৫ লাখ কি.মি.

streetview1

বেশির ভাগ সময় গুগলের স্ট্রিট ভিউ গাড়ি দিয়েই ছবি তোলার কাজটি করে থাকে। কিন্তু যেসব যায়গায় গাড়ি পৌঁছাতে সক্ষম হয় না, সেখানে পায়ে হেঁটেই ছবি ধারণ করতে হয়।

বিশেষ সেই ক্যামেরা ৩৬০ ডিগ্রি থেকেই ছবি তুলতে পারে।

সোমবার গুগল স্ট্রিট ভিউতে থাইল্যান্ডের আরও ১৫০টি নতুন জায়গার ছবি দিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে সুখতাই হিস্টোরিক্যাল পার্ক ও প্রাচীন আয়ুত্থা মন্দির।

আর এই কাজটি করতেই পাঙুপং লাঙ্গসা নামে এক থাই যুবককে বেছে নেয় গুগল। তিনি ডিভাইসটি নিয়ে ৫ লাখ কি.মি. ভ্রমণ করেছেন, যার মধ্যে ৫শ’ কি.মি. পায়ে হেঁটে। এই বিরাট পথ বিভিন্নভাবে পাড়ি দিয়ে হয়েছে পাঙুপাংকে।

গুগল জানায়, ‘চা বাগান, স্ট্রবেরি ক্ষেতের ছবি তোলার সময় পাঙুপং লাঙ্গসার ৪ জোড়া জুতা নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।’

তার এই কাজটি করতে মোট ২ বছর সময় লেগেছে। বৃষ্টির দিনে কাজ করতে পারেননি লাঙ্গসা। কারণ স্ট্রিট ভিউ ক্যামেরা সূর্যের আলোতেই কাজ ভালো করে।

স্ট্রিট ভিউয়ের সেই ব্যাগটির ওজন প্রায় ১৮ কেজির মতো। ঘাড় থেকে ২ ফুট উঁচুতে থাকে ক্যাপচার ডিভাইসের মাথা। একবার চার্জ দিলে ৬ থেকে আট ঘণ্টা কাজ করতে পারে।

থাইল্যান্ড ছাড়াও ভবিষ্যতে ইন্দোনেশিয়া, দুবাই বুর্জ আল-খলিফা ও মিশরের পিরামিডকেও স্ট্রিট ভিউয়ের আওতায় নিয়ে আসবে।

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top