শিরোনাম

সোমবার, সেপ্টেম্বর 25, 2017 - ডি-লিংক এর স্পেশাল অফার | সোমবার, সেপ্টেম্বর 25, 2017 - রংতা ব্র্যান্ডের নতুন পিওএস প্রিন্টার | সোমবার, সেপ্টেম্বর 25, 2017 - নারীর নিরাপত্তা ও শরনার্থীদের শিক্ষা বিষয়ক ধারণা যাচ্ছে ওসলোর টেলিনর ইয়ুথ ফোরামে | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - উদ্বোধনের অপেক্ষায় শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - আপনারই কিছু ভুল হয়তো অজান্তে ফোনের পারফরম্যান্স খারাপ করছে | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - খুলনায় দুইদিনের বেসিক আরডুইনো কর্মশালা অনুষ্ঠিত | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - ঢাকা মহিলা পলিটেকনিককে স্যামসাং এর পক্ষ থেকে অত্যাধুনিক ল্যাব হস্তান্তর  | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - সিডস্টারস ঢাকায় দেশের সেরা স্টার্টআপ সিমেড হেলথ | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড ফোনকে মডেম হিসেবে ব্যবহারের উপায় | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - আসছে নকিয়ার আরও দুই ফোন |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / স্বাস্থ্যবিষয়ক অ্যাপস নিয়ে কর্মশালা
স্বাস্থ্যবিষয়ক অ্যাপস নিয়ে কর্মশালা

স্বাস্থ্যবিষয়ক অ্যাপস নিয়ে কর্মশালা

শুরু হয়ে গেছে জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল অ্যাপলিকেশন (অ্যাপস) উন্নয়নে সচেতনতা ও দক্ষতা বাড়ানোর কার্যক্রম। বছরব্যাপী এই কার্যক্রমের প্রথম ধাপে গতকাল শনিবার ঢাকার আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আলোচনা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় অ্যাপসের জন্য ধারণা উদ্ভাবনী কর্মশালা।

স্বাস্থ্যবিষয়ক অ্যাপস তৈরির ধারণা উদ্ভাবন বিষয়ে অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় অংশ নেন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ৬৪ জন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ। প্রথমে তাঁদের অ্যাপসের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানানো হয়। তারপর তাঁরা প্রত্যেকেই একটি করে ধারণাপত্র তৈরি করেন। ধারণাপত্রগুলোর উপস্থাপনা শেষে চলে এসবের মান উন্নয়ন। অ্যাপসের ধারণাপত্রের কাঠামো তৈরিতে সহযোগিতা করেন এথিক্স অ্যাডভান্স টেকনোলজিস লিমিটেডের (ইএটিএল) ১৮ জন নির্মাতা।

ea

ধারণাপত্রের উপস্থাপনা পর্বে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের (আইসিটি) সচিব নজরুল ইসলাম খান বলেন, বর্তমান সময়কে জেনে-বুঝে মানসম্মত ও যুগোপযোগী স্বাস্থ্যবিষয়ক অ্যাপস নির্মাণ করতে পারলে স্বাস্থ্যসেবায় অনেকটা এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইএটিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ মুবিন খান, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামুদ্দিন আহমেদ, মাল্টিমিডিয়া কন্টেন্ট অ্যান্ড কমিউনিকেশনস লিমিটেডের (এমসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আবির এবং প্রকল্পের প্রধান সমন্বয়কারী আবুল হাসান।

দিনের বিভিন্ন সময়ে কর্মশালা পরিদর্শনে আসেন স্বাস্থ্যবিষয়ক উপদেষ্টা সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, পিকেএসএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল করিম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আবুল কালাম প্রমুখ।

জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল অ্যাপলিকেশন উন্নয়নে সচেতনতা ও দক্ষতা বৃদ্ধি কার্যক্রমের আওতায় আট পর্যায়ে কাজ করা হবে। পুরো কার্যক্রমটি পরিচালনা করছে ইএটিএল এবং এমসিসি। কার্যক্রম চলবে ২০১৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top