ঢাকা | মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯ |
৩১ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

নীতিমালার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলছেন বিআরটিএ চেয়ারম্যান

অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে উবার , জিম্মি যাত্রীরা

অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে উবার , জিম্মি যাত্রীরা
অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে উবার , জিম্মি যাত্রীরা

সরকারি নীতিমালা লঙ্ঘন করে ঢাকার রাস্তায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে রাইড শেয়ারিং সার্ভিস উবার।

এ সার্ভিসের ক্ষেত্রে ২০১০ সালের ট্যাক্সিক্যাব নীতিমালায় বর্ণিত ভাড়ার হার প্রযোজ্য হওয়ার কথা। ওই নীতিমালা অনুসারে বর্ধিত চাহিদার কারণে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার বিধান নেই। কিন্তু ঢাকায় প্রায় ২৪ ঘণ্টায়ই উবার সার্ভিসে 'ফেয়ার আর স্লাইটলি হায়ার ডিউ টু ইনক্রিজড ডিমান্ড' বা 'বর্ধিত চাহিদার কারণে ভাড়া কিছুটা বেশি' নোটিশ দিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে।

বর্ধিত চাহিদা দেখিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় নীতিমালার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার।

আর উবারের মুখপাত্র বলছেন, যাত্রী ও চালকের অবস্থানের দূরত্ব, যানজট সবকিছুর ওপর ভিত্তি করে উবারের নিজস্ব পদ্ধতির অ্যালগরিদম অনুযায়ী প্রথমে সম্ভাব্য ভাড়া দেখায়। এ ক্ষেত্রে নীতিমালার ব্যত্যয় হচ্ছে কিনা, তার কোনো জবাব তিনি দেননি।

এদিকে চালকরা অভিযোগ করেছেন, উবার বর্তমানে চালকদের কাছ থেকে ২৫ শতাংশ হারে কমিশন আদায় করছে। ভ্যাট ও অন্যান্য কর মিলিয়ে প্রায় ৩০ শতাংশই কেটে রাখা হচ্ছে। ফলে উবারের চালকদের আয়ও কমে গেছে।

অনুসন্ধানের জন্য ভিন্ন ভিন্ন জায়গা থেকে সকাল, দুপুর, বিকেল ও রাত ১০টার পর উবারের গাড়ির জন্য কল করা হয়। তবে সব সময়ই 'বর্ধিত চাহিদার কারণে ভাড়া কিছুটা বেশি' নোটিশ দেখা যায়।

উবারের নিয়মিত যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দিন-রাত ২৪ ঘণ্টায় এই নোটিশ দেখানো হয়। এর ফলে স্বাভাবিক ভাড়ার চেয়ে দেড় থেকে দুই গুণ ভাড়া দেখানো হচ্ছে। এমনকি গাড়ি পাঁচ মিনিট দূরত্বে থাকলেও বর্ধিত ভাড়ার নোটিশ দেখানো হয়। গন্তব্যে যাওয়ার পর সেই ভাড়ার খুব বেশি হেরফের হয় না। যাত্রীকে অতিরিক্ত ভাড়াই দিতে হয়।

যাত্রীরা আরও জানান, ঢাকায় রাইড শেয়ারিং সার্ভিস পাঠাও বা ওভাই অ্যাপ থেকে প্রাইভেটকার পাওয়া যায় না। কল করে মোটরসাইকেলও আগের চেয়ে অনেক কম পাওয়া যায়। বরং রাস্তার মোড়ে মোড়ে চুক্তিতে যাওয়ার জন্য মোটরসাইকেল চালক দাঁড়িয়ে থাকেন। এর আগে অ্যাপবহির্ভূত চুক্তি বা 'অফলাইন ট্রিপ' অবৈধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ ঘোষণা করে বিআরটিএ।

তবে এর প্রতিফলন রাস্তায় নেই। দেশীয় রাইড শেয়ারিং সার্ভিসে প্রাইভেটকার না পাওয়া সম্পর্কে জানা যায়, কিছুদিন আগে 'ওভাই' তাদের ভাড়া পরিশোধ ব্যবস্থা পুরোপুরি ক্যাশলেস করে ফেলে। এ কারণে অধিকাংশ চালক ওভাই অ্যাপ ব্যবহার বন্ধ করে দেয়। আর 'পাঠাও'তে মোটরসাইকেল পাওয়া গেলেও প্রাইভেটকার পাওয়া যায় না বললেই চলে। তাই পাবলিক বাস ও সিএনজি অটোরিকশার বাইরে মধ্যবিত্তকে প্রাইভেটকারের জন্য উবারের ওপরেই নির্ভর করতে হয়।

উবারের কয়েক চালক জানান, শুরুতে উবারে কমিশন বাবদ ১৫ শতাংশ হারে টাকা কেটে নেওয়া হতো। এ ছাড়া এখন উবার অ্যাপে যাত্রীর কল এলে সম্ভাব্য একটি ভাড়া তারাও দেখতে পান। কম ভাড়া হলে তারা কল ফরওয়ার্ড করেন। ফলে যাত্রীকে আবার নতুন একটি গাড়ির জন্য অপেক্ষা করতে হয়।

তবে যাত্রীদের অভিযোগ, অধিকাংশ ক্ষেত্রে চালকরা কল ফরওয়ার্ড না করে যাত্রীকেই কল কেটে দিতে বলেন। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই যাত্রীদের উবারের নিজস্ব নীতিমালা অনুযায়ী পাঁচ মিনিটের বেশি সময় পর কল কেটে দেওয়ার জন্য 'কল ক্যান্সেলেশন ফি' ৩০ টাকা দিতে হয়। অনেক ক্ষেত্রে চালকরা দীর্ঘ সময় যাত্রীকে অপেক্ষা করিয়ে নিজেরাই কল কেটে দেন। এ ক্ষেত্রেও উবারের নীতিমালা অনুযায়ী যাত্রীকেই ক্যান্সেলেশন ফি গুনতে হয়।

কর্তৃপক্ষের বক্তব্য :উবারের মুখপাত্র ই-মেইলে প্রশ্নের উত্তরে জানান, উবার ২০১০ সালের ট্যাক্সিক্যাব নীতিমালায় ২০১৪ সালে সংশোধিত ভাড়ার হার অনুযায়ী ঢাকায় যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া নিচ্ছে। তবে উবার যাত্রীকে সম্ভাব্য ভাড়া দেখানোর ক্ষেত্রে নিজস্ব অ্যালগরিদম বা 'ডাইনামিক প্রাইসিং' পদ্ধতি অনুসরণ করে। চাহিদা বেশি হলে ভাড়া বেশি হতে পারে। এ পদ্ধতি বাংলাদেশ, ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই অনুসরণ করা হয়। তিনি আরও বলেন, চালকদের আরও বেশি যাত্রীসেবা সম্পর্কে সচেতন করার মাধ্যমে আরও উন্নততর সেবা নিশ্চিত করতে নতুন বিনিয়োগ করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, ট্যাক্সিক্যাব নীতিমালায় বর্ণিত ভাড়ার বেশি নেওয়ার সুযোগ নেই। কোনো রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের নিজস্ব অ্যালগরিদমের ভাড়া প্রযোজ্য হবে না। অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ পেলে অবশ্যই সেই রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায়,উবার,জিম্মি যাত্রীরা,বিআরটিএ
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়