চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে আমাজনের আয় ১০৮ বিলিয়ন ডলার !

চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে আমাজনের আয় ১০৮ বিলিয়ন ডলার !
মহামারীতে ২০২১ সালের প্রথম তিন মাসে আমাজনের আয় ১০৮ বিলিয়ন ডলার

এবার মার্কিন ই–কমার্স জায়ান্ট আমাজন জানিয়েছে তাদের মুনাফার পরিমাণ। করোনার কারণে অনলাইনে কেনাকাটা বেড়ে যাওয়ায় এই প্রযুক্তি জায়ান্টের আয় বেড়েছে ব্যাপক। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে আমাজনের আয় হয়েছে ১০৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৭৫ বিলিয়ন ডলার। তিন মাসে মুনাফা হয়েছে ৮ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল আড়াই বিলিয়ন ডলার। অর্থাৎ এবার প্রায় তিন গুণ বেশি মুনাফা হয়েছে আমাজনের।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, মহামারির তাণ্ডবে মানুষ দিশেহারা হলেও স্বর্ণযুগ পার করছে প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো।

অনলাইনে কেনাকাটা বৃদ্ধি ছাড়াও আমাজনের এই ব্যাপক মুনাফার পেছনে রয়েছে কোম্পানির নতুন স্ট্রিমিং সার্ভিস প্রাইম ভিডিও ও এডব্লিউএস। আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী জেফ বেজোস বলেন, আমাজন পরিবারে নতুন এই সেবা নিয়ে তিনি গর্বিত। প্রায় ১০ বছর আগে প্রাইম ভিডিও চালু করে আমাজন। গত বছর প্রায় ১৭ কোটি মানুষ প্রাইম ভিডিওতে সিনেমা ও অনুষ্ঠান দেখেছে। অন্যদিকে আমাজন ওয়েব সার্ভিসেস (এডব্লিউএস) চালু হয় ১৫ বছর আগে। বার্ষিক বিক্রির পরিমাণ প্রায় ৫৪ বিলিয়ন ডলার।

গত বছর করোনা মহামারির শুরু থেকে সারা বিশ্বে ব্যাপক রকম চাহিদা বেড়েছে স্মার্ট ডিভাইসসহ নানা প্রযুক্তিপণ্যের। করোনার কারণে এখনো অনেক দেশে বিধিনিষেধ আরোপ আছে, কাজকর্ম অনেকটাই এখন অনলাইননির্ভর। আর যার কারণে মুনাফায় ভরে যাচ্ছে প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো। গতকাল মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল জানায়, মহামারির শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত আইফোন বিক্রি বেড়ে যাওয়ায় তাদের দ্বিগুণ মুনাফা হয়েছে। আগামী দিনেও মুনাফার বিষয়ে আশাবাদী তারা।

অন্যদিকে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক কোম্পানি স্যামসাং জানায়, চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে গত তিন বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ মুনাফা হয়েছে তাদের। বাম্পার মুনাফার কথা জানিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকও। ব্যাপক মুনাফা করেছে গুগলও।

০৮ বিলিয়ন ডলার,আমাজনের আয়
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়