ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ |
২৮ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

গুগল ম্যাপসের ৫টি অজানা ফিচার, জানলে আপনি অবাক হতে বাধ্য!

গুগল ম্যাপসের ৫টি অজানা ফিচার, জানলে আপনি অবাক হতে বাধ্য!
গুগল ম্যাপসের ৫টি অজানা ফিচার, জানলে আপনি অবাক হতে বাধ্য!

নতুন নতুন জায়গায় ঘুরে বেড়াতে কে না ভালোবাসে! কিন্তু নতুন জায়গা গেলে অনেকসময়ই রাস্তা খুঁজে পেতে খানিক বিড়ম্বনার সম্মুখীন হতে হয় আমাদের। সেক্ষেত্রে আমরা হয় পথচারীদের সাহায্য নিয়ে থাকি অথবা এখন নিজের স্মার্টফোনে থাকা গুগল ম্যাপসের দ্বারস্থ হই। আর বর্তমানে গুগল ম্যাপস (Google Maps) সম্পর্কে কমবেশী সবাই ওয়াকিবহাল। কিন্তু জানেন কি গুগল ম্যাপসে শুধুমাত্র রাস্তা খুঁজে পাওয়া ছাড়াও আরও অনেক অজানা ফিচার রয়েছে?

হ্যাঁ, শুধু ভ্রমণকে সহজ করে তোলাই নয়, গুগল ম্যাপসে (Google Maps) এমন কিছু ফিচার আছে যেগুলো সম্পর্কে জানলে আপনি অবাক হতে বাধ্য। আসুন জেনে নেওয়া যাক এরকমই ৫টি উল্লেখযোগ্য ফিচার সম্বন্ধে।

১। অটোমেটিক্যালি ভ্রমণ সংগঠন করা : আপনারা হয়তো জানেন গুগল ক্যালেন্ডারে (Google Calender) কোনো ইভেন্টকে সেভ করে রাখলে ক্যালেন্ডার আপনাকে নির্দিষ্ট সময়ে রিমাইন্ডার (Reminder) দেয়, অর্থাৎ মনে করিয়ে দায়। ঠিক একই রকমের সুবিধা পাওয়া যাবে ম্যাপসেও। এর জন্য গুগল ম্যাপস খুলে একদম নীচে ‘সেভড’ (Saved) ট্যাবটি ক্লিক করে ‘রিজার্ভেশন’ (Reservation) ট্যাবটি পেয়ে যাবেন। সেখানে আপনি আপনার আগামী দিনের ভ্রমণ সংক্রান্ত পরিকল্পনার তালিকা তৈরী করতে পারবেন।

২। পিন করা যাবে: আপনি যে জায়গাগুলিতে ঘন ঘন যান সেগুলি পিন করে রাখতে পারেন এবং দ্রুত অ্যাক্সেস করতে পারেন গুগল ম্যাপসের (Google Maps) মাধ্যমে৷ এর জন্য, কোনো জায়গার নাম সার্চ করার পর ‘পিন’ (Pin) অপশন পাবেন। সেখানে আপনি বিভিন্ন জায়গাকে পিন করে রাখতে পারবেন ফলে বাড়তি সুবিধা হবে আপনারই।

৩। মিউজিক কন্ট্রোল: গুগল ম্যাপস (Google Maps) ইন্টারফেসের মাধ্যমে মিউজিক কন্ট্রোল করা সম্ভব। হ্যাঁ, আপনি ঠিকই পড়েছেন! এর জন্য আপনাকে গুগল ম্যাপসের ‘সেটিংসে’ (Settings) যেতে হবে। সেখানে ‘নেভিগেশন সেটিংস’ (Navigation Settings) নির্বাচন করতে হবে এবং তারপরে ‘অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিফল্ট মিডিয়া প্রোভাইডার’-এ ( Assistant default media provider) ক্লিক করতে হবে। সেখানে মিউজিক অ্যাপকে সিলেক্ট করে রাখলে গুগল ম্যাপসে পেয়ে যাবেন মিউজিক কন্ট্রোলের সুবিধা।

৪। লোকেশন শেয়ার: কেউ কি আপনার ঠিকানা খুঁজছে অথচ সঠিক অবস্থান সনাক্ত করতে পারছে না? আপনি তাদেরকে আপনার ঠিকানা খুঁজে পেতে সাহায্য করতে পারেন বা আপনি যেখানে আছেন কেবল তাঁদের একটি আপডেট দিতে পারেন৷ হোয়াটসঅ্যাপে যে সুবিধা ছিলই। গুগল ম্যাপসের (Google Maps) মাধ্যমে এই সুবিধা পেতে আপনাকে নীল রঙের লোকেশন ডটে ক্লিক করতে হবে এবং তারপরে যে মেনুটি আসবে সেখান থেকে ‘শেয়ার লোকেশন’ (Share Location) করতে হবে।

৫। রেস্তোরাঁর পরামর্শ: আপনি কি রেস্তোরাঁয় খাওয়ার পরিকল্পনা করছেন? কাছাকাছি রেস্তোরাঁগুলিতে ব্রাউজ করার পরিবর্তে আপনি গুগল ম্যাপস (Google Maps) ব্যবহার করে রেস্তোরাঁর সন্ধান পেতে পারেন৷ গুগল ম্যাপসের শীর্ষে ‘রেস্তোরাঁ’ (Restaurants) বোতামটি ক্লিক করে সেখানে প্রদর্শিত বিকল্পগুলি থেকে আপনার পছন্দের রেস্তোরাঁ বেছে নিন।

Google Maps,গুগল ম্যাপস,অজানা ফিচার
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়